Sunday, 16 April 2017

খিড়কি রহস্য

দিল্লি যেন বুঢঢি বেগমসাহেবার হিরে জহরতের তিজোরি । সিন্দুকের পাল্লা খুললেই রাশি রাশি গয়না । তবে কিনা বেগম বুড়ো হয়ে গেছেন । চোখেও দেখেন না , কানেও শোনেন না , মাথার শাদা চুল সব জট পাকিয়ে গেছে । চলতে ফিরতে পারেন না । কোন রকমে এলিয়ে পড়ে আছেন । বাঁদি বান্দা খাদিম খিদমদ্গার সব ব্যাটা পালিয়েছে বুড়িকে ফেলে । গয়না গাটি গুলো ধুলো ময়লা ঝেড়ে সাফ সুতরো না করলে তাদের চেকনাই আসবে কেমন করে । আবার ব্যাবহার না করায় কোনোটা এক্কেবারে ভেঙে গেছে , রঙ চটে গেছে , মনি মুক্তো পাথর সব খসেখসে পড়ে গেছে । কাজেই ভালো ভালো জড়োয়ার গয়নাগাটি গুলোর দেখভাল কোনরকমে হলেও চারদিকে ছড়িয়ে ছিটিয়ে কতো যে পড়ে আছে তার হিশেব রাখা অসম্ভব । সে রকমই একটা আড়ালে লুকিয়ে থাকা জায়গা দেখলাম। খিড়কি মসজিদ । মানে জানালাওয়ালা মসজিদ । অনেক জানালা আর জালির কাজ ।মসজিদের চারদিকে গিজগিজে মহল্লা । উঁচু উঁচু বাড়ি । কাশীর মতো গলি । গলির গলি তস্য গলির এইরকম একটা ঘেরাটোপের মধ্যে কি অদ্ভুত একটা কাঠামো দৈত্যের মতো দাঁড়িয়ে আছে । কেউ পাত্তাও দেয় না ।

মসজিদ, কিন্তু মসজিদের মতন একেবারেই দেখতে নয় । দেখলে মনে হয় দুর্গ । আকারে প্রকারে মাঝারি মাপের একটা দুর্গ । তুঘলকদের বেগমপুর মসজিদও তাই । চাকচিক্য লাবণ্য তুঘলক জমানায় আসেই নি । শুধু কেজো ব্যাপার । কাঠখোট্টা । ধর্মস্থানকে নিরাপত্তার জন্যও ব্যাবহার করার জন্যও কি? বাইরে থেকে,পাশ থেকে দেখলে হঠাত করে কেমন যেন লন্ডনের টাওয়ার হাউস মনে হয় । ভেতরে অসংখ্য খিলানের ভুলভুলাইয়া । আর জালির কাজ । আর মনে হয় অজস্র গল্প কিলবিল করে খিলানে খিলানে জালিতে জালিতে জড়িয়ে আছে । ধর্ম শক্তি বরাবরই রাজশক্তিকে নিয়ন্ত্রণ করেছে । কিন্তু সমগ্র মধ্যযুগ চিহ্নিত হয়ে আছে ধর্ম আর রাজশক্তির আঁতাতে । ধর্মীয় ভাব থেকে ষড়যন্ত্র গা ছমছমে খুন খারাবির কথা কেমন যেন মনে হচ্ছিল । এটা বানিয়ে ছিলেন ফিরোজ শাহ তুঘলকের প্রধানমন্ত্রী । এমন ঢাকাঢুকো মসজিদ আমাদের দেশে প্রায় নেই বললেই চলে । জামা মসজিদের সাজ সাজাওট কিছুই এর নেই । একজন জাঁদরেল সেনাপতির মতো মাথা তুলে সময়কে টুসকি মেরে উড়িয়ে দিচ্ছে যেন । কিন্তু কি আশ্চর্য লোকজন কেউ ই প্রায় বলতে পারছিল না এর কথা ।







পড়ন্ত বিকেলের আলোয় সে কেমন বিষণ্ণ ভাবে আমাদের দিকে তাকালো । ভেতরে ঢুকে ভুলভুলাইয়ার গোলকধাঁধায় মনে হচ্ছিল হারিয়ে যাব । জালি দিয়ে তেরছা হয়ে পড়ছে ম্লান রোদ্দুর । ঝাঁক ঝাঁক পায়রার উড়োউড়ি । কি হত এখানে !এতো বড় মাপের দুর্গের মতো মসজিদে?

No comments:

Post a Comment